Apan Desh | আপন দেশ

বেজি রক্ষায় সোস্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক প্রচারণা যে কারণে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৩:৫৮, ২০ জুন ২০২৪

আপডেট: ০০:৩২, ২১ জুন ২০২৪

বেজি রক্ষায় সোস্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক প্রচারণা যে কারণে

ফাইল ছবি

চিকনগুনিয়া, ডেঙ্গু, করোনা-এসব রোগবালাই থেকে মুক্তি মেলেনি। বিশ্ব মন্দার ছাপ লেগেছে সব শ্রেণী-পেশার মানুষের। এরই মধ্যে নতুন উপদ্রপ সাপ। চাউর উঠেছে প্রতিবেশী দেশ থেকে এসেছে। যেনতেন সাপ নয়, রাসেলস ভাইপার। যমদূতসাপ দেশের বিভিন্ন জেলায় ইতোমধ্যে ১০জনের প্রাণনাশ করেছে। ভয়ঙ্কররূপ নিয়েছে এ সাপ।

সাধারণ সাপ মানুষ দেখলে পালিয়ে যায় আর রাসেলস ভাইপার তেড়ে আসে মানুষের দিকে। কৃষি প্রধান দেশে এ সাপ বিষিয়ে তুলেছে কৃষকদের। বিশেষ করে ধান ক্ষেতে এ সাপের অবস্থান বেশি। ধান কাটা শেষ। কিন্তু মানুষ খেকো সাপের প্রাদুর্ভাব কমেনি বরং বেড়েছে। ধান ক্ষেতের সাপ এখন নগরেও চলে এসেছে।

সাপ থেকে বাঁচতে সোস্যাল মিডিয়ায় ঘুরছে লড়াকু-বুদ্ধিমান ও দৌড়বিদ প্রাণী বেজির ছবি। অকারণে বেজি মারার প্রবণতা রয়েছে মানুষের মধ্যে। যে কারণে অরণ্যই তাদের জন্য নিরাপদ। ‘আমি বেজি আমাকে মারবেন না বাঁচতে দিন আমি আপনাদের বাঁচাব’ আকুতিটি।    

হ্যাঁ বেজিকে উদৃত করে লেখার কারণও আছে। চলুন জেনে নেই কেনো এ প্রাণীর প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে।

দুঃসাহসী, তেজি, ভীষণ রাগী বেজি নতুন প্রজন্মের কাছে অপরিচিত। সারা দেশেই আছে এরা, তবে সংখ্যায় খুবই কম। বেশি দেখা যেতে পারে সুন্দরবন লাগোয়া জেলাগুলোতে ও দেশের উত্তর-পশ্চিমের জেলাগুলোতে।

বৈজ্ঞানিক নাম Herpes edwardsii. ভারতে Gray Mongoose নামে পরিচিত, বেজি দেখতে অনেকটাই খরগোসের মতো। রং একনজরে ধূসর ছাই। শুধু শরীরের মাপ ৩৭-৪৮ সেমি। লেজ ৩৩-৪৫ সেমি। ওজন দেড়-দুই কেজি। ছোট বেজির ওজন আরও কম হয়। গায়ে সরু লম্বা লোম আছে। রাগান্বিত হলে তা ময়ূরের মতো ছড়িয়ে নেয়। এদের গর্ভধারণকাল ৬০-৬৫ দিন। প্রতি প্রসবে ছানা হয় ২-৪টি। এ প্রাণীটি খায় ফসলের খেতের বড় বড় ইঁদুরসহ ছোট সাপ, মাছ, ব্যাঙ, পোকা-পতঙ্গ-ছোট পাখি। বুনো পাখি শিকারে এদের পারদর্শিতা ঈর্ষণীয়। বিষধর সাপকে যে প্রাণীটি চরম কুশলতায় ও ধূর্ততায় ক্লান্ত-শ্রান্ত-উদ্‌ভ্রান্ত করে মেরে ফেলে, পোষা কুকুর-বিড়ালকে যারা থোড়াই কেয়ার করে, চরম দুঃসাহসে দুটি প্রাণী মিলে রাজহাঁস পর্যন্ত মেরে ফেলতে পারে। সঙ্গে বাচ্চা থাকলে এরা কোনো শত্রুকেই খাতির করে না। পোষা হাঁস-মুরগির ছানাদের বাগে পেলে এরা সবগুলোকে মারবে আগে, তারপরে মুখে ধরে নেবে হয়তো দু-একটাকে। অতীন্দ্রিয় ক্ষমতাবলে এরা দূরের সাপেরও সন্ধান পেয়ে যায়। লাফ দিতে পারে চার ফুট উচ্চতায়।

প্রাণীর আবার সিনিয়র-জুনিয়র শ্রদ্ধাবোধ আছে? বেজি লালনকারীদের ভাষ্য-হ্যাঁ। ছোট ভাই ছোট বেজি (Small Indian Mongoose)। ছোট ভাইয়েরা বড় ভাইদের যেমন সমীহ করে, তেমনি বড় ভাইয়েরাও ছোটদের ভালো নজরে দেখে।

আপন দেশ/এবি

মন্তব্য করুন # খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, আপন দেশ ডটকম- এর দায়ভার নেবে না।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়