Apan Desh | আপন দেশ

ফেসবুকে হা হা রিয়েক্টকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, গ্রেফতার ৮

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৯:১১, ২ এপ্রিল ২০২৪

ফেসবুকে হা হা রিয়েক্টকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, গ্রেফতার ৮

ছবি: সংগৃহীত

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ফেসবুকে হা হা রিয়েক্টকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় হওয়া মামলায় আটজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতাররা হলেন- কমলপুর এলাকার কামাল মিয়া, ফিরোজ আহম্মেদ, নয়ন মিয়া, আরিয়ান ইসলাম, জিহাদ সরকার, হেদায়েতউল্লাহ, সৌরভ আহম্মেদ, মো. আবির হুসেন। তাদের সরকারি কাজে বাধাদানসহ বিভিন্ন ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

রোববার (১ এপ্রিল) উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

জানা যায়, সোমবার রাতে ভৈরব র‍্যাব ক্যাম্প এলাকার হার্ডওয়ার দোকানের কর্মচারী আজিবর ও ওমর মিয়ার ফেসবুক পোস্টে হা হা রিয়েক্ট দেয়াকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডা হয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুজনকে মিলিয়ে দেন দোকান মালিক মানিক মিয়া। ঘটনার আধাঘণ্টা পর দু’পক্ষ দা, বল্লম, লাঠি সোঠা, ইট পাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার একপর্যায়ে কমলপুর মধ্যপাড়ার সংঘর্ষকারীরা পূর্বপাড়ার ১০ দোকান এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দা উজ্জল মিয়াসহ পাঁচজন আহত হন।

এ বিষয়ে কমলপুর মধ্যপাড়ার আইনুল মিয়া বলেন, ফেসবুকে হা হা রিয়েক্ট এর মতো সামান্য বিষয় নিয়ে কিছু কিশোর পোলাপান ঝগড়ায় মেতেছে। আমি তাদের ফিরিয়ে দিয়েছি। সংঘর্ষকারীরা অনেকগুলো দোকানের সাটার কুপিয়ে ভেঙে দিয়েছে।

এ বিষয়ে পূর্বপাড়া এলাকার কাজী মামুন বলেন, আমি একটি চায়ের দোকানে বসে ছিলাম। হঠাৎ দেখি দুই পক্ষের কিছু বখাটে যুবক দা বল্লম লাঠিসোঁটা নিয়ে ঝগড়া করছে। ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় মধ্য পাড়ার কিছু বখাটে যুবক দোকান পাট ভাঙচুর করছে। আমি চেষ্টা করেছি ফিরিয়ে দিতে কিন্তু তারা আমার কোন কথা শুনেনি। তারা সব কয়টা কম বয়সী কিশোর। এরা আমাদের এলাকার বেয়াদব ছেলেপেলে। দুই দিন যেতে না যেতেই তারা ঝগড়ায় লিপ্ত হয়।

এ বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দোকানদার রিপন মিয়া ও বাচ্চু মুয়া বলেন, আমাদের কি অপরাধ। আমরা মসজিদে তারবিহ নামাজে গিয়েছিলাম দোকান বন্ধ করে। এসে দেখি দোকানের সাটারগুলো কুপিয়ে ভেঙে দিয়েছে। এরা সব কয়টা কিশোর গ্যাং পোলাপান। আমরা এদের বিচার চাই।

৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কামাল আহমেদ বলেন, তুচ্ছ একটি ঘটনায় দু’পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। ঝগড়া করেছে কিছু কিশোরগ্যাংয়ের পোলাপান। তারা অনেকগুলো দোকাপাট ভাঙচুর করেছে। বিষয়টি দুঃখজনক।

ভৈরব থানা ওসি মো. সফিকুল ইসলাম জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে লোকাল বাসস্ট্যান্ড এলাকার দুই পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৮ রাউন্ড সর্ট গানের ফাঁকা গুলি বর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৮ জনকে আটক করে। 

পুলিশের কাজে বাধা প্রদান, জানমালের ক্ষতি সাধনসহ বিভিন্ন ধারায় পুলিশ বাদী হয়ে আটজনের নাম উল্লেখ করে ৩০ জনকে আসামি করে মামলা করেছে। এ মামলায় আটকদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের ধরতে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও ওসি জানান।

আপন দেশ/এসএমএ

মন্তব্য করুন # খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, আপন দেশ ডটকম- এর দায়ভার নেবে না।

শেয়ার করুনঃ

জনপ্রিয়