Apan Desh | আপন দেশ

পরী এবার চয়নিকা-বুবলীকে একহাত নিলেন

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:০৪, ২ এপ্রিল ২০২৪

পরী এবার চয়নিকা-বুবলীকে একহাত নিলেন

ছবি : সংগৃহীত

আমি বেয়াদব, বেয়াদবী করেই বাকি জীবনটা কাটিয়ে দিতে চাই। ভারতের কলকাতায় সিনেমার শুটিংয়ের ফাঁকে এমনইভাবে নিজের দুঃখ প্রকাশ করলেন ঢালিউড চিত্রনায়িকা পরীমনি। তিনি বলেন, অকারণে অনেকেই আমাকে ভুল বোঝে।

সম্প্রতি বিশেষ এক সাক্ষাৎকারে ক্যারিয়ারের পাশাপাশি ব্যক্তিজীবন নিয়েও কথা বলেন পরী। আর সেখানেই চয়নিকা আর বুবলীকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন অভিনেত্রী।

এই মুহূর্তে কলকাতার ‘ফেলুবক্সী’র সিনেমায় ব্যস্ত পরী। সিনেমায় তার অভিনীত চরিত্রের নাম লাবণ্য। চরিত্র অনুযায়ী এরই মধ্যে নিজের নতুন লুক তৈরি করে নিয়েছেন পরী। শুটিংয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন কলকাতার সহঅভিনয় শিল্পী মধুমিতা আর সোহমের সঙ্গে।

শুটিংয়ের ফাঁকেই ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারে একটি বিশেষ সাক্ষাৎকার দেন পরীমনি। ওই সাক্ষাৎকারে ক্যারিয়ারের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আলাপ করেন অভিনেত্রী।

আলাপচারিতার শুরুতেই পরী জানান, কলকাতায় এটি তার দ্বিতীয় সফর। এর আগেও সিনেমার শুটিং করতে ১২ দিনের জন্য কলকাতায় এসেছিলেন তিনি। পুরোপুরি বাণিজ্যিক সিনেমাতেই কাজ করতে অভ্যস্ত হলেও নিজের অভিনয় প্রতিভা বাড়াতে এবার ভিন্ন ধারার সিনেমায় অভিনয় করতে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন পরী।

কলকাতার সিনেমায় শুটিং শুরু করার পরই ওপার বাংলার একাধিক সিনেমায় অভিনয় করার অফার পাচ্ছেন তিনি। যে কারণে বছরের অর্ধেকটা সময় কলকাতায় থাকার ইচ্ছাও জানিয়েছেন এ নায়িকা।

আড্ডার এক ফাঁকে পরীকে প্রশ্ন করা হয় নায়িকা হিসেবে তিনি বিতর্কিত নাকি সমালোচিত? এমন প্রশ্ন শুনে পরী বলেন, আসলে আমাকে বেশিরভাগ লোকই অকারণে ভুল বোঝে। এমন সব উদ্ভট তথ্য বলে যে মাঝে মাঝে আমিই দ্বিধায় পড়ে যাই যে তারা কোন পরীর কথা বলছে?

আরও পড়ুন <> বুবলী বেয়াদব নয়, কাকে ইঙ্গিত চয়নিকার?

পরীকে নিয়ে বেশি কোন ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে? এমন প্রশ্নের উত্তরে পরী বলেন, আমি ব্যক্তিগত নয়, শুধু কাজের জগতের কথাই বলতে পারি। এই যেমন অনেকেরই ভুল ধারণা রয়েছে, আমি নাকি শুটিং ফাঁসাই। আবার ব্যক্তিগত জীবনে আমাকে নিয়ে যে ভুল ধারণা রয়েছে সেটি হলো আমার অনেক প্রেমিক, আমার বরও অনেক। এসব ব্যাপারে আমি আমার আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলেছি। যারা আমাকে নিয়ে এসব ভুল ব্যাখ্যা দেবে, তাদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনি পদক্ষেপ নেব।

এরপরই পরী বলেন, আসলে আমি খুব স্পষ্টভাষী। মনে এক মুখে আরেক; এমন আমি কখনো ছিলাম না আর কখনো হতেও চাই না। বাস্তব জীবনে অভিনয় করতে পারব না। আমি মনে করি, আমার জীবনটা সিনেমা নয়, তাই অত ‘ফিল্টার’-ও দিতে চাই না।

শুটিং ফাঁসানো প্রসঙ্গে পরী বলেন, শুধু এটুকুই বলব, যেকোনো সিনেমার কাজ নিলে ত দায়িত্ব নিয়ে শেষ করি। তবে হ্যাঁ, দুই একদিন ব্যতিক্রম হতে পারে। এটি দেখে যদি কেউ আমাকে অপেশাদার ভাবেন, প্রকাশ্যে আমাকে নিয়ে সমালোচনা করেন তাহলে বিষয়টি সত্যি কষ্টদায়ক।

এসময় নাম প্রকাশ না করে পরী বলেন, তাই আমি ঠিক করেছি, আর কখনো নারী পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করব না। করলেও বুঝেশুনে করব। অকারণে বদনাম বা বেয়াদব হতে চাই না।

আলাপচারিতার এক পর্যায় ঢালিউড চিত্রনায়িকা বুবলী প্রসঙ্গ উঠতেই পরী বলেন, দেখুন আমি আমার ছেলের ব্যাপারে বরাবরই সিরিয়াস। পদ্মর ব্যাপারে কিছু করতে গিয়ে আমি কাউকে কপি করি না। আবার নিজের আবেগের বহিঃপ্রকাশ কেউ কপি করলে তা মেনেও নিতে পারি না।

বুবলী প্রসঙ্গে পরী আরও বলেন, আমার ইমোশন হঠাৎ করে আসে না। যখন প্রথম মা হতে চলেছি জানতে পারি, তিন মিনিটের মধ্যে তখনই আমার ভক্তদের সঙ্গে বিষয়টা শেয়ার করেছি। যখন অনুভব কললাম আমার বেবিবাম্প, সঙ্গে সঙ্গেই সে অনুভূতি ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেছি। হঠাৎ সন্তান জন্মের দুই বছর পর নিজের বেবিবাম্প ভক্তদের দেখানোর জন্য হাজির হইনি।

এরপরই পরী বলেন, ছেলের জন্মদিনে নিজের আবেগ নিয়ে যে ভিডিও আমি বানিয়েছি, সেটা বাচ্চার তিন বছর পরে আমার আবেগ কাজ করবে না। আমি বলতে চাইছি, আমার আবেগ হঠাৎ করে আসে না। আর তাৎক্ষণিক যেটি আসে সেটি কারো কপি করা হয় না। আমি মনে করি প্রত্যেক মায়েরই মা হওয়ার একটা সুন্দর জার্নি আছে। মানুষ ভেদে অনুভূতিগুলো যেমন আলাদা, তেমনি প্রকাশের ধরনও আলাদা হওয়া উচিত।

ব্যক্তিগত জীবনে এই মুহূর্তে চিত্রনায়িকা বুবলীল সঙ্গে মনোমালিন্য চলছে পরীর। আর মনোমালিন্য বাড়াতে তাতে আরও ঘি দিয়েছেন পরিচালক চয়নিকা চৌধুরী। পরী-বুবলী দ্বন্দ্বের মাঝেই চয়নিকা বুবলীর প্রশংসা করে বলেন, ‘বুবলীকে নিয়ে কাজ করা অনেক আরাম, সে বেয়াদব নয়’। 

আপন দেশ/এমআর

মন্তব্য করুন # খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, আপন দেশ ডটকম- এর দায়ভার নেবে না।

শেয়ার করুনঃ

জনপ্রিয়