Apan Desh | আপন দেশ

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত গ্রামের ১৪ শতাংশ মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১১:৪৪, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আপডেট: ১১:৫৫, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত গ্রামের ১৪ শতাংশ মানুষ

ছবি: সংগৃহীত

ডায়াবেটিস রীতিমতো মহামারী আকার ধারণ করেছে। গ্রামের তুলনায় শহরাঞ্চলে এ রোগের প্রকোপ আরও বেশি। ঢাকা ও ময়মনসিংস বিভাগের গ্রামাঞ্চলে ১৪ শতাংশ মানুষ এ রোগে আক্রান্ত। আক্রান্তদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যান মাত্র ২৬ শতাংশ। 

সেন্টার ফর গ্লোবাল হেলথ রিসার্চ, ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ও স্বাস্থ্য সেবা অধিদফতরের অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে। ২০২২ সালের আগস্ট থেকে ২০২৩ সালে আগস্ট পর্যন্ত ঢাকা ও ময়মনসিংহের আট উপজেলায় সমীক্ষাটি চালানো হয়।

সমীক্ষায় দেখা যায়, এ দুই বিভাগে ৭০ শতাংশ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্তের ঝুঁকিতে রয়েছেন। আর গ্রামের ১৪ শতাংশ মানুষ এরই মধ্যে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়েছেন। শহরে বসবাসকারীদের মধ্যে আক্রান্তের হার আরও বেশি বলে সমীক্ষায় উল্লেখ করা হয়। ২৫ থেকে ৬৫ বছর বয়সী ১১ হাজার মানুষের ওপর সমীক্ষাটি চালানো হয়।

আরও পড়ুন>> সন্তানের খতনায় যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকবেন

সমীক্ষায় ডায়াবেটিস আক্রান্ত বলে শনাক্তদের ৩৩ দশমিক ২ শতাংশের বয়স ২৫ থেকে ৩৫ বছর, ২৫ দশমিক ৬ শতাংশের বয়স ৩৬ থেকে ৪৫ বছর, ২১ দশমিক ৫ শতাংশের বয়স ৪৬ থেকে ৫৫ বছর, ১৯ দশমিক ৭ শতাংশের বয়স ৫৬ থেকে ৬৫ বছর। সমীক্ষায় অন্তর্ভুক্ত প্রায় ২৯ দশমিক ৯ শতাংশ তামাক সেবন করেন। কায়িক পরিশ্রম করেন না ৬৭ শতাংশ। দৈনিক পাঁচ প্রকার শাকসবজি ও ফলমূল খান না ৯৮ দশমিক ৯ শতাংশ। ২০ দশমিক ৬ শতাংশের পারিবারিক ডায়াবেটিসের ইতিহাস আছে।

এমন পরিস্থিতিতে ডায়াবেটিস সম্পর্কে সচেতনতা গড়তে আজ (২৮ ফেব্রুয়ারি) সারাদেশে পালিত হচ্ছে ‘ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস’, বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। দিবসটির এবারের মূল প্রতিপাদ্য– ‘ডায়াবেটিস প্রতিরোধের এখনই সময়’। এ উপলক্ষে সকাল ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত বারডেম ক্যাম্পাস, এনএইচএন ও বিআইএইচএসের বিভিন্ন কেন্দ্র-সংলগ্ন স্থানে বিনামূল্যে ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হয়। দুপুরে হবে আলোচনা সভা। সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামন্ত লাল সেনের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

আপন দেশ/এসএমএ

শেয়ার করুনঃ

জনপ্রিয়